সবার প্রতি আমাদের বীর সন্তান ব্ল্যাক হ্যাট হ্যাকারদের খোলা চিঠি

সবার প্রতি আমাদের বীর সন্তান ব্ল্যাক হ্যাট হ্যাকারদের খোলা চিঠি ( অবশ্যই পড়ুন )
—————————————————————————
—————————————————————————-
ভারত-বাংলাদেশ পাল্টাপাল্টি সাইট হ্যাকের ঘটনা এখন সামাজিক সাইটগুলোতে উত্তেজনা ছড়াচ্ছে। এ নিয়ে দু দেশের কয়েকটি হ্যাকার দল ঘটা করেই নাম প্রকাশ করে ইমেইল পাঠাচ্ছে। এ লড়াইয়ের পরিসর ক্রমেই বড় হয়ে উঠছে। বাড়ছে উত্তাপ।

এ নিয়ে বাংলাদেশ ব্ল্যাকহ্যাট হ্যাকার্স মিডিয়া রিশেসন সূত্র পরিচয়ে একটি ইমেইল বার্তা পাঠিয়েছেন। পাঠকদের জানার জন্য এ বার্তাটি হুবহু উপস্থাপন করা হলো।

প্রিয় বাংলাদেশি, আমরা বাংলাদেশের সাইবার যোদ্ধা, সীমান্ত হত্যা বন্ধে আমরা ভারতীয়দের সঙ্গে সরাসরি যুদ্ধ ঘোষণা করেছি। যতক্ষণ পর্যন্ত সীমান্ত হত্যা পুরোপুরি বন্ধ না হবে ততদিন থামবে না আমাদের এ সাইবার যুদ্ধ। আমরা কেবল ভারতের বন্দুকের সামনে বুক পেতে দিতেই নয়, তাদের অন্যায়ের প্রতিবাদও করতে পারি।

এটি অত্যন্ত আনন্দের সংবাদ, আমাদের গ্রুপে বা ফ্যানপেজে যখনই আমরা কোন আপডেট প্রকাশ করছি, তাৎক্ষণাৎ পাওয়া যাচ্ছে হাজারও মানুষের সমর্থণ, তাঁরা মন্তব্য করে এবং শেয়ার করে আমাদের বার্তা সর্বত্র পৌছে দিচ্ছে। আমরা এত বিপুল পরিমাণ সাড়া পেয়ে অভিভূত।

এটি এখন আর কেবল বাংলাদেশি হ্যাকারদের সংগ্রাম বা যুদ্ধ নয়, এটি এখন সারাদেশের মানুষের যুদ্ধে পরিণত হয়েছে। সাধারণ ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরাও ব্যাপকভাবে আমাদের এ প্রতিবাদে অংশ নিচ্ছেন। সাধারণ ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের উদ্দেশ্যে আমরা বলতে চাই, আপনাদের সবার সমর্থনের জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।

তবে দু:খজনক হলেও সত্য, কিছু ব্লগার এবং সামাজিক যোগাযোগ ব্যবহারকারী সাইবার যোদ্ধাদের কটুকথা বলছেন। যারা আমাদের সাইবার যুদ্ধের মধ্যে শিবির-ছাগু কানেকশন খুজে বের করার চেষ্টা করছেন তাদের উদ্দেশ্য আমাদের কাছে অপরিস্কার নয়। আমাদের এ প্রতিবাদের মোড় অন্যদিকে ঘুরিয়ে দেয়ার অপচেষ্টা করছেন অনেকে, এখান থেকে কেউ কেউ ফায়দা লুটতে চাচ্ছেন।

আমরা খুব পরিস্কারভাবে বলতে চাই, আমাদের একমাত্র উদ্দেশ্য বিএসএফ কর্তৃক সীমান্ত হত্যা বন্ধ করা। আর কোন উদ্দেশ্য নেই। অনেকে অপ্রয়োজনীয় কথা বলছেন, আশা করছি এ মিথ্যাচার তাঁরা বন্ধ করবেন। প্লিজ, এতগুলো মানুষের একটি মহৎ উদ্দেশ্যকে নিয়ে অপপ্রচার করবেন না।

আমাদের আক্রমণ চলছেই। ধীরে ধীরে আক্রমণ আরও বাড়ছে। এরই মধ্যে ভারতের ২০ হাজারেরও বেশি ওয়েবসাইট হ্যাক করা হয়েছে। হ্যাকিংয়ের এ পরিমাণ আরও বাড়ছে প্রতিমুহুর্তেই। শত শত নতুন নতুন হ্যাকার আমাদের সঙ্গে যোগ দিচ্ছেন, সাধারণ অনেক ইন্টারনেট ব্যবহারকারীও আমাদের সহায়তা করছে।

আন্তর্জাতিক একাধিক হ্যাকার গ্রুপ আমাদের সঙ্গে কাজ করছে। সর্বশেষ আমাদের পক্ষ হয়ে বিশ্বের সবচেয়ে বড় সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান মাইক্রোসফটের ভারতীয় ওয়েব স্টোর হ্যাক করেছে চীনা হ্যাকাররা।

আমরা দেশের প্রত্যেকটি নাগরিককে সচেতন হওয়ার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি। তাদের উদ্দেশ্যে আমাদের একটাই চাওয়া, আপনারা জেগে উঠুন। বিএসএফ এর নৃশংসতার বিরুদ্ধে কথা বলুন। আমরা আজ রাত্রে একটি ভিডিও মেসেজ অবমুক্ত করবো। সেখানে সাধারণ নাগরিকদের করণীয় সম্পর্কিত সব তথ্য থাকবে। পরবর্তী নির্দেশনার জন্য অন্তত সে পর্যন্ত অপেক্ষা করুন।

আমরা বলতে চাই, যতক্ষণ সীমান্ত হত্যা বন্ধ না হবে, ততক্ষণ আমাদের এ যুদ্ধ থামবে না। শরীরে এক বিন্দু রক্ত থাকা পর্যন্তও না। আমাদের একজন সদস্যের একটি কথা সবাইকে শোনাতে চাই (I don’t care even if death comes… I`ll keep fighting for my motherland until we get victory…!!!) এটি কেবল একজনের কথা নয়, পুরো সাইবার যোদ্ধা দলেরই মনের কথা। বিপ্লব কখনো বৃথা যায় না।

( সুত্র – বাংলানিউজ ও মিডিয়া কো-অরডিনেটর, BANGLADESH BLACK HAT HACKER)

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s